প্রেমিকার সঙ্গে রাতে দেখা করতে গিয়ে লাশ হলেন তরুণ

কুষ্টিয়া শহরের মিলপাড়ার গড়াই নদীর ধারে নির্মাণাধীন ইকোপার্ক থেকে সবুজ মণ্ডল (১৯) নামে নিহত এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (২২ ডিসেম্বর) সকালে তার মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহতের বাবা হায়দার আলী বলেন, সবুজ স্থানীয় একটি তিলের খাজা কারখানায় কাজ করত। গত মঙ্গলবার (২১ ডিসেম্বর) রাতে কারখানায় কাজে যাওয়ার পরে সে আর ফিরে আসেনি। পরে কারখানায় খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন রাত ১টার দিকে কারখানা থেকে অজ্ঞাতনামা একজন সবুজকে ডেকে নিয়ে যায়।

তিনি আরও জানান, প্রেমঘটিত বিষয়কে কেন্দ্র করে আমার ছেলেকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে নির্যাতন ও কুপিয়ে হত্যা করেছে ওই তরুণীর পরিবারের লোকজন ও তার সাবেক শ্বশুরবাড়ির মানুষ। এ বিষয়ে কথা বলার জন্য প্রেমিকা ওই তরুণীর বাড়িতে গেলে কাউকে পাওয়া যায়নি।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সবুজ হাসানের সঙ্গে ইকোপার্ক এলাকার এক তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ১৫ দিন আগে কুমারখালীতে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় ওই তরুণীর। বিয়ের কয়েকদিন পরে তরুণী তার স্বামী বাড়ি থেকে বাবার বাড়ি চলে আসে এবং স্বামীকে তালাক দেয়।

কয়েকদিন ধরে সবুজের সাথে দেখা করে এবং মোবাইলে কথে বলে ওই তরুণী। তারা কারও কথা না শুনে প্রেমের সম্পর্ক অব্যাহত রাখে। রাতে প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে গেলে সবুজকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। সবুজের প্রেমিকার বাড়ি ইকোপার্কের পূর্ব পাশে।

এ ঘটনায় কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাব্বির উল আলম বলেন, স্থানীয়দের খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, প্রেম বা পরকীয়া সম্পর্কের জেরে তাকে হত্যা করা হতে পারে। পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছে পুলিশ এবং অপরাধীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চলছে।

পাঠকের মন্তব্য:

Check Also

নিখোঁজের দুদিন পর বাগানে মিলল প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ

মাদারীপুরে নিখোঁজের দুদিন পর মৌসুমি আক্তার (২৪) নামে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *