Tuesday , September 21 2021

রাশিয়ায় বরফ যুগের লোমশ গণ্ডারের দেহাবশেষ উদ্ধার

রাশিয়ার উত্তরে সাইবেরিয়া অঞ্চলে উদ্ধার হলো আইস এজ বা বরফ যুগের একটি গণ্ডারের দেহাবশেষ। বিজ্ঞানীদের বক্তব্য, ২০ থেকে ৫০ হাজার বছর আগে সাইবেরিয়া অঞ্চলে মৃত্যু হয়েছিল ওই গণ্ডারটির। এত পুরনো প্রাণীর এত সুঠাম দেহাবশেষ এর আগে মেলেনি বলে দাবি করছেন বিজ্ঞানীরা। গণ্ডারটির নির্দিষ্ট বয়স জানার জন্য দেহটি পরক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে।

সাইবেরিয়া অঞ্চলে বিপুল বরফের চাদরে এতদিন ঢেকে ছিল গণ্ডারটির দেহ। বিজ্ঞানীদের ধারণা, তিন-চার বছর বয়সে পানিতে ডুবে মৃত্যু হয়েছিল প্রাণীটির। গণ্ডারটির শরীরে বড় বড় লোম ছিল। দেহে পাকস্থলীসহ আরো বেশ কিছু অঙ্গ পাওয়া গিয়েছে। এতদিন পরেও যা পুরোপুরি নষ্ট হয়ে যায়নি। বিজ্ঞানীদের বক্তব্য, প্রবল ঠাণ্ডার মধ্যে ছিল বলেই দেহটি এতটা অক্ষত আছে। এত বছরের পুরনো দেহ এত সুন্দরভাবে পাওয়া যাবে, অনেকেই তা কল্পনা করতে পারেননি।

এর আগে এই অঞ্চল থেকেই আরো একটি গণ্ডারের দেহ আবিষ্কার করেছিলেন বিজ্ঞানীরা। পরে জানা যায়, ওই গণ্ডারটির মৃত্যু হয়েছিল ৩৫ হাজার বছর আগে। বিজ্ঞানীদের ধারণা, বর্তমান গণ্ডারটির বয়স তার চেয়েও বেশি।

মূলত বিশ্ব উষ্ণায়নের জন্যই ওই অঞ্চল থেকে একের পর এক দেহাবশেষ উদ্ধার হচ্ছে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। সাইবেরিয়ার ওই অঞ্চলে এত দিন কার্যত যাওয়াই যেত না। ইদানীং বরফ গলার কারণে কোনো কোনো এলাকায় যাওয়া যাচ্ছে। সম্প্রতি যে দেহটি উদ্ধার হয়েছে তা পাওয়া গেছে তিরখত্যাখ নদীর ধার থেকে। বিজ্ঞানীদেকর ধারণা, ওই অঞ্চল থেকে এই ধরনের আরো কিছু পশুপাখির দেহ উদ্ধার করা সম্ভব হবে। শীতল যুগে ওই অঞ্চলে প্রচুর প্রাণীর বাস ছিল বলেই মনে করা হচ্ছে।

সূত্র: ডয়চে ভেলে বাংলা।

পাঠকের মন্তব্য:

Check Also

হিন্দু হয়েও মুসলিম বন্ধুর জানাজার নামাজের পেছনে সুধীর বাবুর কান্নার ছবি ভাইরাল!

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে হিন্দু-মুসলিম দুই বন্ধুর অকৃত্রিম ভালবাসার একটি দৃশ্য। ছোটবেলার বন্ধু কুমিল্লা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *