বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে স্কুলছাত্রী

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছে নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী। মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) বিকেল ৫টায় রংপুরের বদরগঞ্জের লোহানিপাড়া ইউনিয়নের মাদাই খামারের জেলেপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। অবস্থান নেয়া প্রেমিকার অভিযোগ, প্রেমিকের পরিবার তাকে নানাভাবে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। অবস্থান নেওয়া ওই শিক্ষার্থীর বাড়ি রংপুরের পীরগঞ্জের উজির দাসপাড়া গ্রামে। তার বাবা একজন কৃষক।

বদরগঞ্জের লোহানি পাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ডলু শাহ জানান, আমার ইউনিয়নের মাদাই খামারের জেলে পাড়ার প্রেমিক সাগর বিশ্বাসের বাড়িতে নবম শ্রেণির এক ছাত্রী অবস্থান নিয়েছেন। তার বাড়ি রংপুরের পীরগঞ্জের উজির দাস পাড়া গ্রামে। তার পিতা স্থানীয় কৃষক।

অবস্থান নেয়া ওই শিক্ষার্থী বলেন, আমাদের মধ্যে সাড়ে তিন বছরের প্রেমের সম্পর্ক। এর মধ্যে আমরা স্বামী-স্ত্রীর মতো মেলামেশা করেছি। কিন্তু সাগর এখন আমাকে ছেড়ে দিনাজপুরের ফুলবাড়ি থানার বেলঘাটা ইউনিয়নে একটি মেয়েকে বিয়ে করতে যাচ্ছে। সেজন্যই আমি তাদের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছি। সাগর আমাকে বিয়ে না করা পর্যন্ত বাড়ি থেকে নড়বো না।

তিনি জানান, সাগরের বাড়িতে আসার পর তার পিতা দুলাল বিশ্বাসসহ পরিবারের লোকজন এবং স্থানীয় চৌকিদার জমশেদ আলী আমাকে তুলে দেওয়ার জন্য নানাভাবে হুমকি-ধামকি দিচ্ছে। এতে আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। বলেন, চৌকিদার জামশেদ আমাকে প্রশাসনের ভয় দেখিয়ে এই বাড়ি থেকে যাওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করেছে। আমাকে মেরে ফেললেও বিয়ে না করা পর্যন্ত আমি এই বাড়ি থেকে নড়বো না।

লোহানিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ডলু শাহ্ বলেন জানান, নবম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থী তার কাছে দাবি করেছেন, ফেসবুক এবং দিদার বাড়িতে যাওয়া আসার সূত্র ধরে গত সাড়ে তিন বছর ধরে চলছিল তাদের সম্পর্ক। এক পর্যায়ে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয় তারা। মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) হঠাৎ করে খবর পায় সাগর বিশ্বাস অন্যত্র বিয়ে করতে যাচ্ছে। সে কথা শুনে বিকেল পাঁচটা থেকে ওই বাড়িতে অবস্থান নেয় সে। খবর পাওয়ার পর বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে বলেও জানান চেয়ারম্যান।

বদরগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুর রহমান হাবিব জানান, রাত সাড়ে দশটা পর্যন্ত আমার কাছে এ ধরনের কোনো ঘটনার খবর আসেনি। আসলে আমরা আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিব।

Check Also

বান্দরবানে হোটেলে কাজ নিয়েছিলেন রহিমা বেগম

খুলনার মরিয়ম মান্নানের মা রহিমা বেগমের অপহরণের প্রমাণ পায়নি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। বরং …

Leave a Reply

Your email address will not be published.