বন্ধ হয়ে গেল ঢাকা-বরিশাল নৌপথের গ্রিন লাইন

যাত্রী সংকটের কারণে ঢাকা-হিজলা-বরিশাল রুটের জনপ্রিয় জাহাজ এমভি গ্রীন লাইন-৩ বন্ধ রাখা হয়েছে। সোমবার (২৫ জুলাই) রাতে নিজেদের ফেসবুক পেইজ থেকে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে বিষয়টি নিশ্চিত করে গ্রীন লাইন ওয়াটার ওয়েজ কতৃপক্ষ।

সেই স্ট্যাটাসে তারা জানান, বিশেষ ঘোষনাঃ- সন্মানিত হিজলা ও বরিশালের যাত্রীবৃন্দ আপনাদের সকলের অবগতির জন্যে জানানো যাচ্ছে যে আমাদের জাহাজ এম ভি গ্রীন লাইন-৩ ২৬ জুলাই ২০২২ ইং তারিখ থেকে পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত সার্ভিস বন্ধ থাকবে। অর্থাৎ আমাদের ঢাকা-হিজলা-বরিশালের সার্ভিসটি পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। আমাদের ঢাকা-কালীগঞ্জ-ইলিশা রুটের এম ভি গ্রীন লাইন-২ নিয়মিত চলাচল করবে।

এ বিষয়ে গ্রিন লাইন পরিবহন ও ওয়াটার ওয়েজের জেনারেল ম্যানেজার মো. আব্দুস ছাত্তার জানান, পদ্মা সেতু চালু হওয়ায় ঈদের পরে যাত্রী কমে গেছে। অনেকেই প্রস্তাব দিয়েছিলেন ভাড়া কমাতে। তবে ক্যাটামেরান সার্ভিস পরিচালনায় ট্রিপ প্রতি খরচ বেশি। তাছাড়া আমরা পর্যালোচনা করে দেখেছি ভাড়া কমালেও যাত্রী আশানুরুপ বাড়বে না। এছাড়াও বিশ্বব্যাপী ডিজেলের দাম বেড়েছে। ফলে ট্রিপ খরচ উত্তোলন নিয়েই শঙ্কা রয়েছে। ভাড়া কমিয়ে লঞ্চ সার্ভিস দেওয়া সম্ভব। ক্যাটামেরান সার্ভিস অব্যাহত রাখা অসম্ভব।

আব্দুস ছাত্তার বলেন, এমভি গ্রিন লাইন-৩ এ কিছু যান্ত্রিক ত্রুটি রয়েছে। সেটি মেরামত করতে ডকইয়ার্ডে নিতে হবে। এতে কমপক্ষে ১৫ দিন সময় লাগবে। তবে ঢাকা-হিজলা-বরিশাল রুটে আবারও সার্ভিসটি চালু করা হবে কিনা এখনই আমরা বলতে পারছি না। আমাদের ধারণা যাত্রী সংকটের কারণে স্থায়ীভাবেই বন্ধ করা হতে পারে এই রুটের সার্ভিস।

Check Also

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিয়ের গেটের ডিজাইনকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামের সংঘর্ষ, আহত ২০

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় বিয়ে বাড়ির গেটের ডিজাইনকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.