Wednesday , July 6 2022

স্ত্রীর সঙ্গে ম্যানেজারের অবৈধ সম্পর্ক, চাকুরিচ্যূত স্বামী

কারখানার শ্রমিকের স্ত্রীর সঙ্গে কারখানা ম্যানেজারের অনৈতিক সম্পর্কের প্রতিবাদ করায় শ্রমিককে চাকরিচ্যুত করার অভিযোগ উঠেছে ম্যানেজারের বিরুদ্ধে। এর জের ধরে ম্যানেজারকে রাজপথে ধরে উত্তমমধ্যম দেওয়া হয় বলে জানা গেছে। শনিবার বিকালে ঢাকা জেলার সর্বশেষ উপজেলার ধামরাইয়ের আমতা ইউনিয়নের জগৎনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

জানা যায়, উপজেলার জগৎনগর বিক্রমপুর কাস্টিংয়ের জেনারেল ম্যানেজার বিপ্লব সরকার স্থানীয় প্রণয় দাসের স্ত্রীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক পাকাপোক্ত করতে তাকে ওই কারখানায় শ্রমিকের চাকরি দেন। এ সুযোগে বিপ্লব সরকার ওই শ্রমিকের স্ত্রীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক চালিয়ে যাচ্ছিলেন। মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে এ অনৈতিক সম্পর্ক আঁচ করতে পারেন ওই শ্রমিক। পরে শ্রমিক গত বুধবার ম্যানেজারের কাছে এ বিষয়ে প্রতিবাদ জানালে ক্ষিপ্ত হয়ে গত বৃহস্পতিবার ওই শ্রমিককে চাকরিচ্যুত করেন।

এরই জের ধরে প্রণয় দাস গত শনিবার বিকেলে ম্যানেজার বিপ্লব সরকারকে একা পেয়ে জগৎনগর বাজারে উত্তম মধ্যম দেন। এসময় তার পকেট থেকে দুই লাখ টাকা নেয়ার অভিযোগ তুলে শ্রমিক প্রণয় দাসের বিরুদ্ধে। পরে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় শ্রমিক প্রণয় দাস উপজেলার কাওয়ালীপাড়া বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে ওই ম্যানেজারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। পরে ওই ম্যানেজারও প্রণয় দাসের বিরুদ্ধে পাল্টা অভিযোগ করেন বলে জানা গেছে।

শ্রমিক প্রণয় দাস জানান, ‘আমার স্ত্রীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কের প্রতিবাদ করায় ওই ম্যানেজার আমাকে চাকরিচ্যুত করে। পরে আমি তাকে রাস্তায় ধরে কিছু উত্তম মধ্যম দিই। তবে কোনো টাকাপয়সা নিইনি। আমি এ বিষয়ে পুলিশের কাছ অভিযোগ করেছি।’

ম্যানেজার বিপ্লব সরকার বলেন, ‘কাজে অবহেলা করায় প্রণয় দাসকে চাকরিচ্যুত করা হয়। এর পর তিনি তার স্ত্রীর সঙ্গে আমার অনৈতিক সম্পর্ক আছে বলে অভিযোগ তোলেন। এরপর সে ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে বাজারে আটকে মারধর করে। এ সময় আমার প্যান্টের পকেটে থাকা ২ লাখ টাকা সে নিয়ে যায়। আমি এ ব্যাপারে কাওয়ারীপাড়া বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে অভিযোগ করেছি। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।’

কাওয়ারীপাড়া বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. রাসেল মোল্লা বলেন, ‘এ ব্যাপরে তদন্ত শুরু হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

Check Also

স্কুলে প্রেমিকার সঙ্গে অ’প্রীতিকর অবস্থায় দেখে ফেলাই কাল হলো শিক্ষক উৎপলের?

সাভারে হাজি ইউনুস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক উৎপল কুমার স’রকারকে হ’’ত্যার মূল কারণ ছিল …

Leave a Reply

Your email address will not be published.