পরকীয়ায় বাধা হল সন্তান, স্তন্যপানের সময় বালিশ চাপা দিয়ে মারল মা

প্রতিবেশীর সঙ্গে পরকীয়ার জেরে দুই বছরের শিশুকন্যাকে হত্যা করলেন পাষণ্ড মা। ভারতের পিংলায় এই খুনের ঘটনায় আটক করা হয়েছে মা ও প্রেমিককে। মেয়েকে হত্যার পর শনিবার (১১ ডিসেম্বর) দুপুর থেকে গল্প সাজিয়ে চলেছিল মা। শেষ পর্যন্ত পুলিশ ও প্রতিবেশীদের চাপে সত্য সামনে এলো। মায়ের সাজানো গল্প ফাঁস হয়ে গেল। জানা গেলে, লেপে চাপা পড়ে নয়, মা-ই বালিশ চাপা দিয়ে খুন করেছে ২ বছরের মেয়েকে।

জানা গেছে, ওই শিশুকন্যাকে স্তন্যপান করানোর সময় প্রেমিক দেবাশিস মণ্ডলের সঙ্গে ফোনে প্রেমালাপ করছিল মা পূজা জানা। সেইসময় ওই শিশুকন্যার জন্য প্রেমালাপে বিঘ্ন ঘটে তার। অভিযোগ, বাধা পেয়েই রেগে গিয়ে বালিশ চাপা দিয়ে ২ বছরের সন্তানকে খুন করে পূজা।

প্রসঙ্গত, শনিবার দুপুরে পিংলা থানার বাখনাবাড় গ্রাম পঞ্চায়েতের উত্তরবাড় গ্রামে ২ বছরের শিশুকন্যা দীপ্তি জানার মৃত্যু হয়। মা পূজা জানা দাবি করে যে, লেপে জড়িয়ে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে মেয়ের। কিন্তু প্রতিবেশীদের সন্দেহ হয়। সত্যি ঘটনাটা জানার জন্য প্রতিবেশীরা চাপ দিতেই বদলে যায় পূজার বক্তব্য।

তখন অভিযুক্ত পূজা জানা জানায় যে, তিনিই বালিশ চাপা দিয়েছিল ছোট্ট মেয়েকে। এরপরই পুলিশি জেরায় উঠে আসে আসল ঘটনা। জানা যায়, প্রতিবেশীর সঙ্গে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক রয়েছে পূজার। আর সেই প্রেমিকের সঙ্গে ফোনালাপে বাধা পেয়েই ওই শিশুকন্যাকে মা খুন করেন বলে প্রাথমিক তদন্তে উঠে আসে।

জানা গিয়েছে, বছরতিনেক আগে দেবাশিস জানার সঙ্গে বিয়ে হয় পূজার। দম্পতির একমাত্র সন্তান ছিল দুই বছরের মেয়ে দীপ্তি। স্বামী দেবাশিস জানা কর্মসূত্রে আন্দামানে থাকেন। স্বামীর অনুপস্থিতিতেই প্রতিবেশী দেবাশিস মণ্ডলের সঙ্গে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক গড়ে ওঠে গৃহবধূ পূজা জানার। অভিযুক্ত পূজার বোন জানিয়েছেন, প্রেমিকের সঙ্গে কথা বলার জন্য নিজের গয়না বিক্রি করে ফোন কিনেছিল দিদি। প্রেমিক দেবাশিসও দিদিকে মাঝেমধ্যে টাকা দিত।

দেবাশিস জানার বাবা অর্থাৎ পূজার শ্বশুর রাজমিস্ত্রির কাজ করেন। ঘটনার সময় তিনি কাজে অন্যত্র গিয়েছিলেন। অন্যদিকে, দেবাশিসের মা অর্থাৎ পূজার শাশুড়ি বাড়ির সামান্য দূরে ছাগল চরাতে গিয়েছিলেন। এরমধ্যেই ঘটে যায় মর্মান্তিক ঘটনাটি। এরপর প্রতিবেশীরাই প্রেমিক দেবাশিস মণ্ডলকে ধরে আনে। মা পূজা জানা ও প্রেমিক দেবাশিস মণ্ডল, দুজনকেই মারধর করে উত্তেজিত জনতা। পরে পুলিশ এসে দুজনকেই আটক করে নিয়ে যায়। সূত্র: জিনিউজ।

পাঠকের মন্তব্য:

Check Also

নিখোঁজের দুদিন পর বাগানে মিলল প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ

মাদারীপুরে নিখোঁজের দুদিন পর মৌসুমি আক্তার (২৪) নামে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *