Tuesday , July 5 2022

জেনে নিন, কেন খুশি হয়ে রিকশাচালককে ১ কোটি ১৫ লাখ টাকার সম্পত্তি লিখে দিলেন সেই বৃদ্ধা

অসহায় রিকশাচালককে নিজের সব সম্পত্তি লিখে দিয়ে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন ৬৩ বছর বয়সী এক বৃদ্ধা। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের ওডিশার কট্টকে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, ৬৩ বছর বয়সী মিনতি পাটনায়েক কট্টকের সুতাহাট এলাকার বাসিন্দা। তিনি তাঁর তিনতলা ভবন, সোনার গয়না ও তাঁর সমস্ত সম্পদ একজন রিকশাচালককে দিয়ে গেছেন, যার মূল্য এক কোটি রুপির বেশি (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় এক কোটি ১৫ লাখ টাকা)।

মিনতি গত বছর তাঁর স্বামীকে হারান। পরে মেয়ের সঙ্গে বাকি জীবন কাটানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু স্বামীর মৃত্যুর ছয় মাস পর মেয়ে কোমলেরও মৃত্যু হয়। এরপরই পুরোপুরি একা হয়ে পড়েন মিনতি। এরপর মিনতির দেখভাল শুরু করেন রিকশাচালক বুধা সামাল। এতে খুশি হয়ে মিনতি তাঁর সব সম্পদ বুধাকে লিখে দিয়েছেন।

মিনতি বলেন, `আমার সমস্ত আত্মীয়র যথেষ্ট সম্পত্তি আছে এবং আমি সব সময় একটি দরিদ্র পরিবারকে আমার সম্পদ দান করতে চেয়েছিলাম। আমার মৃত্যুর পর যাতে কেউ তাদের হয়রানি না করে, সে জন্য আমি বৈধভাবে বুধা ও তার পরিবারকে সবকিছু দান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

তবে বুধাকে সব সম্পত্তি দেওয়ার বিরোধিতা করেছেন মিনতির বোন। এ সম্পর্কে মিনতি বলেন, `আমার মেয়ের মৃত্যুর পর কেউ এগিয়ে আসেনি। গত ২৫ বছর ধরে বুধা ও তার পরিবারের সঙ্গে আমাদের পারিবারিক সম্পর্ক রয়েছে।’

মিনতি জানান, বুধা তাঁর মেয়েকে স্কুল-কলেজে নিয়ে যেতেন।

সম্পদ পাওয়ার বিষয়ে বুধা বলেন, `আমি কখনো এই সম্পদের স্বপ্ন দেখিনি। কিন্তু আমি সব সময় মিনতির দেখাশোনা করেছি। তাঁর মৃত্যুর আগ পর্যন্ত আমরা তাঁর পাশে থাকব।’

Check Also

চিড়িয়াখানায় এক দর্শকের উপর বৃহৎ আকৃতির বানরের আকস্মিক আক্রমণ

একটি চিড়িয়াখানা বিপন্ন প্রাণী এবং প্রজাতি সম্পর্কে জানার জন্য একটি দুর্দান্ত জায়গা হতে পারে, তবে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.