পুকুরে ভাসছিল শিশুর নিথর দেহ

দিনাজপুরের বোচাগঞ্জে আড়াই মাস বয়সী শিশুকে হত্যার অভিযোগে পিতা ও দাদা-দাদীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে এসেছে পুলিশ। সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তাদের আটক করে পুলিশ।

এর আগে সকালে বাড়ির পাশের একটি পুকুরে শিশুটির নিথর দেহ পানিতে ভাসতে দেখে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। নিহত শিশুর নাম মোছা. সুমাইয়া। সে ১নং নাফানগর ইউনিয়নের ডহরা (মেম্বারপাড়া) গ্রামের মো. সোহেল রানা ও মোছা. মাশতুরা বেগম দম্পতির মেয়ে।

জানা যায়, গতকাল রবিবার মা মাশতুরা বেগম সুমাইয়াকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। এ সময় ২/৩ জন ব্যক্তি ঘরে ঢুকে তাকে অজ্ঞান করে শিশুটির মুখে কাপড় পেঁচিয়ে নিয়ে চলে যায়। আজ সোমবার সকালে বাড়ির পাশের একটি পুকুরে শিশুটির নিথর দেহ ভাসতে দেখেন তার দাদী রিনা বেগম।

১নং নাফানগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহনেওয়াজ পারভেজ সাহান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, খুবই মর্মান্তিক ঘটনা। এ ঘটনায় অপারাধীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি। বোচাগঞ্জ থানার ওসি মো. মাহামুদুল হাসান জানান, শিশু হত্যার ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৩ জনকে থানায় আনা হয়েছে।

Check Also

‘বাবা এরা আমাকে মেরে ফেলবে, আমাকে বাঁচাও’

‘বাবা এরা আমাকে মেরে ফেলবে, তাড়াতাড়ি আসো, আমাকে বাঁচাও’- শ্বশুরবাড়ি থেকে ফোন করে বাবার কাছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.